Ad powered by Sohan

মালয়েশিয়া যেতে কত টাকা লাগে ২০২৩।মালয়েশিয়া ভিসার দাম কত

এশিয়ার দেশ মালয়েশিয়া যত সময় যাচ্ছে তত উন্নত হচ্ছে। উচ্চ বিলাসী ও উচ্চবিত্ত দেশ হওয়ায় এখন অনেকে মালয়েশিয়াতে গিয়ে বসবাস শুরু করেছেন। পৃথিবীর বিভিন্ন স্থান থেকে মালয়েশিয়াতে বিভিন্ন কাজের জন্য যেয়ে থাকেন। মালয়েশিয়াতে যাওয়ার জন্য একটি বৈধ ভিসার প্রয়োজন হয়।ভিসা ছাড়া কোনভাবেই কেউ মালয়েশিয়াতে যেতে পারবেন না। তাই আজকের পোস্টে মালয়েশিয়া ভিসা কত টাকা বা মালয়েশিয়া ভিসার দাম কত এই বিষয়ে জানানোর চেষ্টা করা হবে। তাহলে চলুন দেরি না করে জেনে নেওয়া যাক:-

Ad powered by Sohan

 

মালয়েশিয়া ভিসা খরচ কত/malaysia visa cost from bangladesh

 

মালয়েশিয়াতে যাওয়ার জন্য অনেক ধরনের ভিসা করা যায়। ভিসার ধরন ভেদে খরচের পরিমাণ কম বেশি হয়ে থাকে।অনেকে মালয়েশিয়া যাওয়ার জন্য ওয়ার্ক পারমিট ভিসা করে থাকেন, অনেকে স্টুডেন্ট ভিসা করে থাকেন, অনেকে মেডিকেল ভিসা করে থাকেন আবার অনেকে ফ্রি ভিসা করে থাকেন। তাই স্বাভাবিকভাবে ভিসার ক্যাটাগরি অনুযায়ী এখানে খরচের পরিমাণ ভিন্ন হবে।নিচে কোন ধরনের ভিসার জন্য বর্তমানে কত টাকা নেওয়া হচ্ছে এই বিষয়ে সুস্পষ্ট ধারণা দেওয়ার চেষ্টা করা হয়েছেঃ-

Ad powered by Sohan

 

মালয়েশিয়া ফ্রি ভিসা খরচ 

 

অনেকে মালয়েশিয়াতে ফ্রি ভিসা নিয়ে যাই। মালয়েশিয়া ফ্রি ভিসায় গিয়ে কোন কোম্পানির অধীনে কাজ করতে হয় না। অর্থাৎ এই ক্ষেত্রে ব্যক্তি চাইলে নিজের পছন্দ অনুযায়ী যে কোন কাজ করতে পারবে। ফ্রি ভিসার মেয়াদকাল সাধারণত এক বছরের মত হয়ে থাকে। পরবর্তীতে আবার ভিসার মেয়াদ বাড়ানো যায়। বাংলাদেশ থেকে মালয়েশিয়াতে ফ্রি ভিসা নিয়ে যেতে হলে ২ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা থেকে ৩ লক্ষ টাকার মতো খরচ হতে পারে।

Ad powered by Sohan

 

মালয়েশিয়া কোম্পানি ভিসা খরচ 

 

মালয়েশিয়া কোম্পানি ভিসায় গিয়ে নির্দিষ্ট কোম্পানির অধীনে কাজ করতে হয়। তবে এক্ষেত্রে কার্যরত ব্যক্তিরা নির্দিষ্ট কিছু সুযোগ সুবিধা ও পেয়ে থাকেন। যেমন ধরুন উক্ত ব্যক্তির চিকিৎসা খরচ সহ নিরাপত্তার সকল বিষয়ে কোম্পানি দেখভাল করে থাকে। তাছাড়া কোম্পানি ভিসায় গিয়ে অনেক ধরনের বোনাস সুবিধাও পেতে পারেন।মালয়েশিয়া কোম্পানি ভিসা করার জন্য বাংলাদেশ থেকে বর্তমানে খরচ হচ্ছে তিন লাখ টাকার মতো। তবে অনেকেই ২ লাখ ৫০ হাজার টাকার মধ্যেও কোম্পানি ভিসা করতে পারছেন। কোম্পানি ভিসার জন্য কখনোই এর থেকে বেশি টাকা লাগার কথা না। অর্থাৎ এখানে মেডিকেল ব্যতীত সকল ধরনের খরচ হিসাব নিকাশ করে মালয়েশিয়া পৌঁছানো পর্যন্ত ৩ লক্ষ টাকা খরচ হতে পারে। 

Ad powered by Sohan

 

মালয়েশিয়া স্টুডেন্ট ভিসা খরচ কত

 

মালয়েশিয়াতে পড়াশোনা করার জন্য অনেকেই স্টুডেন্ট ভিসা করে থাকেন। স্টুডেন্ট ভিসার মাধ্যমে মালেশিয়ায় পড়াশোনার পাশাপাশি কাজের সুবিধা ও পেতে পারেন।মালয়েশিয়ায় টিউশন ফি ৫ হাজার রিঙ্গিত থেকে শুরু করে ২৫ হাজার রিঙ্গিত পর্যন্ত হয়ে থাকে। তবে বেসরকারি র্যাংক বিশ্ববিদ্যালয় গুলোর টিউশন ফি সাধারণত ৩০০০ রিঙ্গিত থেকে ৪০০০ রিঙ্গিত এর মধ্যে হয়।বাংলাদেশ থেকে যারা মালয়েশিয়া তে উচ্চ শিক্ষার জন্য যান তারা সাধারণত দুই থেকে তিন বছরের জন্য স্টুডেন্ট ভিসা করে থাকেন।মালয়েশিয়া স্টুডেন্ট ভিসা প্রসেস করতে ২০০ ডলারের মত খরচ হতে পারে এবং প্রতিবছর সেখানে থেকে ভিসা বাবদ পড়াশোনার জন্য আ ১২০০ ডলার মত খরচ করতে হবে। 

 

মালয়েশিয়া টুরিস্ট ভিসা খরচ কত 

 

মালয়েশিয়ার টুরিস্ট ভিসার জন্য আবেদন ফি সাধারণত ২৫০০ টাকা নেওয়া হয়ে থাকে। যারা এক মাসের জন্য মালয়েশিয়া টুরিস্ট ভিসা করতে চান তাদের আবেদন ফ্রি জন্য এই টাকা প্রযোজ্য। এক্ষেত্রে প্লেনের টিকিট আপনি কিভাবে কাটবেন কোথা থেকে কাটবেন এটার খরচ আপনার ওপর নির্ভর করবে।যদি মালয়েশিয়াতে টুরিস্ট ভিসা বা ভ্রমণ ভিসার মাধ্যমে জান তাহলে বেশিদিন ট্যুর করতে হলে অবশ্যই ভিসার মেয়াদ বাড়াতে হবে। 

 

আমাদের শেষ কথা 

 

আশা করি আজকের পোস্টটি পড়ার মাধ্যমে মালয়েশিয়া ভিসার দাম কত বা মালয়েশিয়ার ভিসা কত টাকা নেওয়া হচ্ছে এই বিষয়ে পরিপূর্ণ ধারণা পেয়েছেন। তাই ভিসা করার আগে অবশ্যই সঠিক খরচ টা জেনে করবেন তাহলে পরবর্তীতে ভোগান্তির শিকার হতে হবে না।তাছাড়া মালয়েশিয়া ভিসা সম্পর্কিত বিষয়ে যদি কোন প্রশ্ন থেকে থাকে তাহলে কমেন্ট করে জানাতে পারেন। ধন্যবাদ। 

Check Also

লিথুনিয়া কাজের ভিসা পাওয়ার পদ্ধতি

বর্তমানে বাংলাদেশ থেকে প্রতিবছর হাজার হাজার শ্রমিক লিথুনিয়াতে ওয়ার্ক পারমিট ভিসা নিয়ে কাজের উদ্দেশ্যে যাচ্ছে। …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Ad powered by Sohan