ভিসা খবর

কানাডা কৃষি ভিসা পাওয়ার উপায় ও কানাডা কৃষি ভিসা খরচ

কানাডা খুবই উন্নত একটি দেশ। অর্থনৈতিক দিক দিয়ে হিসাব করলেও কানাডা খুবই শক্তিশালী। সম্প্রতি কানাডা সরকার আবারো তাদের দেশে কানাডা কৃষির ভিসা চালু করেছে।অর্থাৎ কানাডা সরকার কৃষি খাতের ওপর একটু বেশি নজর দেওয়ার কারণে বিভিন্ন দেশ থেকে কানাডাতে কাজের জন্য কৃষি ভিসায় লোক নেওয়া হচ্ছে। আজকের পোস্টে আমি আপনাদের সাথে কানাডা কৃষি ভিসা এবং কানাডা কৃষি ভিসা আবেদন কিভাবে করবেন, আবেদন করার জন্য কি কি লাগবে এই সমস্ত বিষয়গুলো সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য  দেওয়ার চেষ্টা করবো।তাহলে চলুন দেরি না করে জেনে নেওয়া যাকঃ-

 

কানাডা কৃষি ভিসা কি চালু রয়েছে?

 

কানাডা ভিসা আবেদন পদ্ধতি জানার আগে প্রথমেই আপনাদেরকে জেনে নিতে হবে কানাডা কৃষি ভিসা এখন চালু রয়েছে কিনা।বর্তমানে কানাডা টুরিস্ট ভিসা, কানাডা কাজের ভিসা এবং কানাডা কৃষি ভিসা সহ সকল ধরনের ভিসা এখন চালু রয়েছে। কানাডা সরকার তাদের দেশে কৃষি কাজের জন্য বিভিন্ন কোম্পানির মাধ্যমে লোক নিয়োগ দিয়েছে। অর্থাৎ কানাডা সরকার উদ্যোগ নিয়েছে কৃষি খাতে যেন তাদের দেশকে আরো সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া যায়।

 

কানাডা কৃষি ভিসা ২০২৩ পেলে কি সুবিধা পাবেন 

 

কানাডা হচ্ছে অর্থনৈতিক দিক থেকে খুবই শক্তিশালী একটি দেশ। কানাডা সরকার লোকবল নিয়োগ দিলেই বিভিন্ন দেশ থেকে হাজার হাজার লক্ষ লক্ষ লোক কানাডা যাওয়ার জন্য আবেদন করে থাকেন।কেননা কানাডাতে তারা ভালো কাজের পাশাপাশি অনেক বেশি বেতন পেয়ে থাকেন। বিশেষ করে যারা কানাডা কৃষি ভিসার মাধ্যমে কানাডা যেয়ে থাকেন তারা অনেকেই এই পদ্ধতিতে ভালো টাকা ইনকাম করে নিতে পারেন।তাছাড়া কানাডাতে সিজনাল কৃষি ভিসায় যখন লোক নেওয়া হয়ে থাকে তাদেরকে অনেক বেশি পরিমাণে কানাডা সরকার বেতন দিয়ে থাকে। যার কারণে Canada aagricultural ভিসায় যাওয়া অনেকটা বেশি লাভজনক বর্তমান সময়ে। 

 

কানাডা কৃষি কাজের বেতন কত

 

কানাডা সরকার দক্ষ কৃষক নেওয়ার জন্য বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে। অর্থাৎ তারা তাদের দেশের কৃষিকাজ করার জন্য কোম্পানির মাধ্যমে দক্ষ কিছু কৃষক কৃষি কাজের জন্য নিবে।অর্থাৎ এই সকল দক্ষ কৃষকগুলো কানাডাতে গিয়ে নির্দিষ্ট মেয়াদের কাজ করবে এবং সেখান থেকে তারা ভালো পরিমাণে টাকা বেতন নিবে। কানাডা কৃষি কাজের বেতন ২ লক্ষ টাকা থেকে শুরু করে তিন লক্ষ টাকা পর্যন্ত দেওয়া হয়ে থাকে।তাহলে অবশ্যই বুঝতে পারছেন যদি কানাডাতে ঠিক জায়গায় কাজ পেয়ে যান তাহলে এখান থেকে আপনি অনায়াসেই ভাল টাকা ইনকাম করে নিয়ে আসতে পারবেন। বিশেষ করে যারা দক্ষ কৃষক রয়েছেন তারা তিন থেকে চার লক্ষ টাকা পর্যন্ত মাসিক বেতন পেয়ে থাকেন। 

 

কানাডা কৃষি ভিসা আবেদন করতে কি কি লাগে

 

আপনি যদি কৃষি ভিসায় কানাডা যেতে চান তাহলে আপনাকে অন্যান্য ডকুমেন্টের পাশাপাশি অবশ্যই ইংরেজিটা ভালোভাবে আয়ত্ত করতে হবে। কেননা যারা ইংরেজিতে ভালো কথা বলতে পারেন তাদেরকে কানাডাতে বেশি প্রাধান্য দেওয়া হয়ে থাকে। তাছাড়া canada কৃষি ভিসায় যাওয়ার জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র যা লাগে তা নিচে দেওয়া হলোঃ-

 

➡️পাসপোর্টে ছয় মাসের মেয়াদ থাকতে হবে। 

➡️জাতীয় পরিচয় পত্রের দুই কপি ফটোকপি লাগবে। 

➡️আপনি যে কৃষি কাজের জন্য দক্ষ তার সার্টিফিকেট লাগবে। 

➡️টুকটাক ইংরেজি বলতে জানতে হবে এবং বুঝতে পারতে হবে।

➡️ইউনিয়ন চেয়ারম্যানের স্বাক্ষরিত সনদপত্র প্রয়োজন হবে।

 

সাধারণত কৃষি ভিসা আবেদন করার জন্য এই ডকুমেন্টগুলো প্রয়োজন হয়ে থাকে। তবে আপনারা চাইলে বাংলাদেশে অবস্থিত কানাডা ভিসা এজেন্সির সাহায্য নিয়ে সরাসরি কানাডা ভিসার জন্য আবেদন করতে পারেন।তাহলে তারাই সকল দায়িত্ব নিয়ে নিবে এবং আপনি যদি আবেদন করতে গিয়ে কোন ধরনের সমস্যার সম্মুখীন হন তাহলে তারা সহযোগিতা করবে।ভিসা আবেদনের দুই থেকে তিন মাসের মধ্যে ভিসা হাতে পেয়ে যাবেন। 

 

কানাডা কৃষি ভিসার দাম কত 

 

যারা কৃষি কাজের জন্য দক্ষ এবং মোটামুটি ইংরেজি বলতে পারেন তারাই শুধুমাত্র কানাডা কৃষি ভিসায় কানাডা যেতে পারবেন।যারা কানাডায় যেতে চান তারা চাইলে বাংলাদেশের ঢাকায় অবস্থিত কানাডা এজেন্সি কোম্পানির সাহায্য নিয়ে সরাসরি কানাডা যাওয়ার রিকোয়ারমেন্ট পূরণ করে কানাডা যেতে পারেন। 

 

অনেকেই কানাডা ভিসার দাম কত এই বিষয়ে জানার আগ্রহ প্রকাশ করেন। বর্তমানে কানাডা ভিসার দাম চার থেকে দশ লক্ষ টাকার মধ্যে ভিসার ক্যাটাগরি ভেদে নেওয়া হয়ে থাকে। আপনি চাইলে কোন এজেন্সির মাধ্যমে অথবা কানাডিয়ান কোন হেল্প সেন্টারে মাধ্যমে এখন ভিসার দাম কত নিচ্ছে সেই বিষয়ে সুস্পষ্ট ধারণা নিয়ে নিতে পারেন।কেননা এজেন্সি ভেদে কানাডা কৃষি ভিসা খরচ কমবেশি হতে পারে। 

 

কানাডায় কৃষি কাজ করে কি ভালো কিছু করা সম্ভব

 

আপনি যদি একজন দক্ষ কৃষক হয়ে থাকেন তাহলে অবশ্যই কানাডা কৃষি বিষয় কানাডায় গিয়ে ভালো কিছু করতে পারবেন। তবে অনেক জরিপে দেখা গিয়েছে যারা মোটামুটি ইংরেজি ঠিকঠাক ভাবে বলতে পারেন এবং কানাডায় গিয়ে কৃষি ভিসায় কাজ করে থাকেন তারা সেখান থেকে লক্ষাদিক টাকা পর্যন্ত ইনকাম করে থাকেন। তাই যদি কৃষি কাজে সঠিক দক্ষতা থাকে এবং মোটামুটি ইংরেজি বলার অভ্যাস থেকে থাকে তাহলে অবশ্যই কানাডাতে কৃষি কাজ করার মাধ্যমে ভালো কিছু করা সম্ভব।

 

কানাডা কৃষি ভিসা আবেদন ফরম

 

canada agricultural visa আবেদন ফরম যারা পেতে চান তারা সরাসরি কানাডা দূতাবাসের ওয়েবসাইট থেকে ভিসা ফরমটি সংগ্রহ করতে পারেন।অথবা সরাসরি কানাডা দূতাবাসে গিয়ে কানাডা ভিসা ফরম নিয়ে নিতে পারেন। তাছাড়া বাংলাদেশে অনেক এজেন্সি রয়েছে যারা কানাডা ভিসা ফরম দিয়ে কানাডা ভিসা ফরম পূরণ করে দিয়ে থাকে। 

 

কানাডার ডলার বাংলাদেশের কত টাকা

 

কানাডা টাকার মান বাংলাদেশের টাকা তুলনায় অনেক বেশি। কানাডার এক ডলার সমান বাংলাদেশের কত টাকা এই নিয়ে অনেকের প্রশ্ন রয়েছে। বর্তমানে কানাডার এক ডলার সমান বাংলাদেশি টাকা ৭৬ টাকার মতো। মাঝেমধ্যেই এই এক্সচেঞ্জ রেট আপডেট হয়ে থাকে।

 

শেষ কথা, আশা করি আজকের পোস্টে যারা পড়েছেন তারা কানাডা কৃষি ভিসা কিভাবে পাবেন বা কানাডা ভিসা সম্পর্কে মোটামুটি ধারণা পেয়েছেন। তারপরেও যদি এই বিষয়ে কোন ধরনের প্রশ্ন থেকে থাকে তাহলে সরাসরি কমেন্ট করে জানাতে পারেন। আপনার প্রশ্নটির খুবই দ্রুত সময়ের মধ্যে উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করা হবে। 

 

সম্পর্কিত আর্টিকেল

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button

Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/educarer/public_html/wp-includes/functions.php on line 5373