Ad powered by Sohan

নতুন ভোটারদের Nid card Download করার উপায়

 

Ad powered by Sohan

আমরা যারা নতুন ভোটার হয়েছি তারা nid card download করার জন্য চেষ্টা করে থাকেন।কিন্তু এদের মধ্যে অনেকেই এনআইডি কার্ড কিভাবে অনলাইন থেকে ডাউনলোড করতে হয় সেটা সম্পর্কে জানেন না।

 

তাই আজকের পোস্টটি যারা নতুন ভোটার হয়েছেন এবং অনলাইন থেকে এনআইডি কার্ড ডাউনলোড করতে চান তাদের জন্য খুবই উপকারী। তারা আজকের এই পোস্টটি পড়ার মাধ্যমে খুব সহজেই বুঝতে পারবেন যে অনলাইন থেকে কিভাবে এনআইডি কার্ড ডাউনলোড করা যায়। আমি আপনাদের সুবিধার জন্য নিচে ধাপে ধাপে দেখাবো nid card download পদ্ধতি। তাহলে চলুন দেরী না করে শুরু করা যাকঃ-

Ad powered by Sohan

 

Nid card download/নতুন ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড

 

আইডি কার্ড প্রত্যেক নাগরিকের কাছে খুবই মূল্যবান। আইডি কার্ডকে কোন দেশের নাগরিক সনদ বলা হয়ে থাকে। তাই এনআইডি কার্ড যখন নতুন ভোটাররা হাতে পাই তখন বাড়তি একটু আনন্দ হয়ে থাকে। বর্তমানে অনলাইনের মাধ্যমে বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনের ওয়েবসাইট থেকে নতুন ভোটাররা চাইলে খুব সহজেই এনআইডি কার্ড ডাউনলোড করতে পারবেন।নিচে ধাপে ধাপে সম্পূর্ণ পদ্ধতি দেখানো হলোঃ-

Ad powered by Sohan

ধাপ ১ঃযারা অনলাইন থেকে এনআইডি কার্ড ডাউনলোড করতে চান তাদেরকে সরাসরি ব্রাউজার থেকে services.nidw.gov.bd এই লিংকটি ব্যবহার করে নির্বাচন কমিশনের ওয়েবসাইটে চলে যেতে হবে। ওয়েবসাইটে আসার পর আপনাদের সামনে এরকম একটি পেজ আসবে এবং এরকম ছবি দেখতে পারবেন।

 

Nid card download

 

Ad powered by Sohan

 

এখান থেকে আপনাদেরকে এবার রেজিস্টার বাটনে ক্লিক করতে হবে।

 

ধাপ ২ঃরেজিস্টার বাটনে ক্লিক করার পর নিচের ছবির মত আপনারা একটি ফ্রম দেখতে পারবেন। এই ফরম এর উপরের অংশে আপনাদেরকে ভোটার স্লিপ নাম্বার এবং নিচের অংশে জন্মতারিখ দিতে হবে।

 

 

Nid card download

 

 

তারপরে ক্যাপচা পূরণ করে সাবমিট বাটনে ক্লিক করতে হবে।

 

 

ধাপ ৩ঃসাবমিট বাটন এর পেজ টি তে ক্লিক করলে পেজটি লোড হয়ে আপনাকে বর্তমান এবং স্থায়ী ঠিকানা নির্বাচনের পেজে নিয়ে যাবে।

 

Nid card download

 

 

এখান থেকে আপনার বর্তমান এবং স্থায়ী ঠিকানার বিভাগ এবং জেলা ও উপজেলা সিলেক্ট করে নিতে হবে। সবকিছু সঠিক ভাবে দিয়ে পরবর্তী বাটনে ক্লিক করবেন। 

 

 

ধাপ ৪ঃপরবর্তী বাটনে ক্লিক করার পর আপনারা এরকম একটি ছবি দেখতে পারবেন। এখানে আপনাকে মোবাইল ভেরিফিকেশন করার জন্য বলা হবে।

 

 

Nid card download

 

 

অর্থাৎ আপনার মোবাইল নাম্বারে একটি কোড যাবে এবং এখানে কোড বসিয়ে বহাল বাটনে ক্লিক করতে হবে। 

 

 

ধাপ ৫ঃতারপরে এখানে আপনি আরেকটি পেইজ দেখতে পাবেন। এখানে বলা হবে আপনাকে nid wallet app টি ইনস্টল করার জন্য।আপনারা এন আইডি কার্ড ডাউনলোড করার আগেই এই অ্যাপটি গুগল প্লে স্টোর থেকে ডাউনলোড করে নেবেন। তাহলে সবথেকে ভালো হয় কোন ধরনের সমস্যায় পড়তে হয় না। 

 

Nid card download

এনআইডি ওয়ালেট অ্যাপ ইন্সটল হয়ে গেলে এটা চালু করবেন।তারপরে উপরের ছবিতে যে কিউআর কোড টি দেখা যাবে সেটা স্ক্যান করতে হবে। তারপরে এখানে নিচের ছবির মত ফেসবুক করার জন্য বলবে। 

start face opson এ ক্লিক করতে হবে। তারপরে আপনারা দেখতে পারবেন আপনার মোবাইলে যে ফন্ট ক্যামেরা রয়েছে সেটি ওপেন হবে।

 

 

Nid card download

 

 

ক্যামেরা ওপেন হলে আপনার ফেস স্ক্যান করবে এবং আপনি একবার মুখ বামদিকে এবং ডান দিকে ঘুরাবেন। আপনার ফেস স্কান যদি সঠিকভাবে হয়ে থাকে তাহলে দুইনাম্বার নমুনা ছবির মতো দেশের ওপর টিক চিহ্ন দেখাবে। 

ধাপ ৬ঃতারপরে ব্রাউজার  রিফ্রেশ হয়ে নিচের ছবির মত আরেকটি ছবি দেখতে পারবেন। অর্থাৎ এটি হচ্ছে আপনার ছবি এবং এখানে পাসওয়ার্ড সেট করার জন্য বলা হবে।

 

Nid card download

 

 

আপনি চাইলে এখানে একটি সুন্দর পাসওয়ার্ড দিতে পারেন অথবা এই বিষয়টি এড়িয়েও যেতে পারেন। 

 

 

যারা পাসওয়ার্ড সেট করবেন তারা সেট পাসওয়ার্ড বাটনে ক্লিক করবেন। সর্বপ্রথম আপনাকে এখানে ইউজারনেম দিতে হবে এবং যারা ইউজারনেম দিতে চান না না দিলেও হবে। তারপর একটি সুন্দর পাসওয়ার্ড সিলেক্ট করে ঘরে দুইবার লিখতে হবে। তারপরে আপনাদেরকে আপডেট বাটনে ক্লিক করতে হবে। সবকিছু সঠিকভাবে হয়ে থাকলে আপনার এনআইডি কার্ডের একাউন্ট এবার তৈরি হয়ে যাবে। 

 

ধাপ ৭ঃএনআইডি কার্ডের একাউন্ট তৈরী হয়ে গেলে এবার আপনাদের সামনে এরকম একটি ছবি আসবে।এখান থেকে আপনাদেরকে ডাউনলোড বাটনে ক্লিক করতে হবে।

 

Nid card download

 

 

ডাউনলোড বাটনে ক্লিক করার পর পরই nid card download হয়ে যাবে। 

 

 

অনলাইন থেকে আপনারা যে আইডি কার্ডটি ডাউনলোড করবেন সেটি পিডিএফ ফাইলে থাকবে তাই অনেকটা সাদাকালো লাগবে। তাই আপনারা কোন প্রিন্টিং দোকান থেকে সরাসরি আইডি কার্ড টি ডাউনলোড করে সুন্দর করে লেমোনেটিং করে নিবেন। এতে করে আপনার আইডি কার্ডটি অনেক আকর্ষণীয় লাগবে এবং সহজে নষ্ট হবে না। 

এনআইডি কার্ড ডাউনলোড করার আগে কিছু কথা 

যারা অনলাইন থেকে এনআইডি কার্ড ডাউনলোড করতে চাই তাদের অবশ্যই কিছু ডকুমেন্টের প্রয়োজন হবে। এই ডকুমেন্টগুলো যদি আপনার কাছে না থাকে তাহলে কোনভাবেই অনলাইন থেকে এনআইডি কার্ড ডাউনলোড করতে পারবেন না।যেমনঃ-

 

➡️ভোটার স্লিপ নম্বর 

 

➡️জন্ম নিবন্ধন সনদ অনুযায়ী জন্ম তারিখ 

যারা অনলাইনের মাধ্যমে nid card download করতে চান তাদেরকে অবশ্যই এই দুইটি ডকুমেন্ট সাথে করে রাখতে হবে। ভোটার স্লিপ নম্বর এবং জন্মতারিখ ছাড়া আপনারা কোনভাবেই অনলাইন থেকে আইডি কার্ড ডাউনলোড করতে পারবেন না। তাই অবশ্যই এই বিষয়টা মাথায় রাখতে হবে। 

আমাদের শেষ কথা 

 

এনআইডি কার্ড আমাদের বিভিন্ন কাজের জন্য দরকার হয়ে থাকে। তাছাড়া আমাদের জাতীয় পরিচয় পত্র এটা। তাই আমাদের কাছে এনআইডি থাকা খুবই জরুরী। যারা নতুন ভোটার হয়েছেন তারা অনলাইন থেকে nid card download ডাউনলোড করতে পারবেন উক্ত নিয়মে। তার পরেও যদি কোন বিষয় সম্পর্কে বুঝতে অসুবিধা হয়ে থাকে তাহলে আমাদেরকে কমেন্ট করে জানাতে পারেন। আমরা আপনার প্রশ্নটির উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করবো।

More tag

 
online nid card download,bd nid card download,bangladesh nid card download,nid card download বাংলাদেশ,services.nidw.gov.bd nid card download,www nid card download,nid card download চট্টগ্রাম,nid card download pdf,nid card download online copy,how to nid card download,digital nid card download,related:https://services.nidw.gov.bd/voter_center nid card download bangladesh,smart nid card download bangladesh

Check Also

কোড দিয়ে জন্ম নিবন্ধন যাচাই নতুন পদ্ধতিতে ২০২৪

কোড দিয়ে জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার পদ্ধতি অনেকেই জানেন না। যাদের জন্ম নিবন্ধনটি অনলাইন করা …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Ad powered by Sohan

Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/educarer/public_html/wp-includes/functions.php on line 5420